শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৫ অপরাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
পটুয়াখালীর একজন সফল ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ রিয়াজ উদ্দিন মৃধা

পটুয়াখালীর একজন সফল ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ রিয়াজ উদ্দিন মৃধা

শামীম আহমেদ, পটুয়াখালী ॥ পটুয়াখালী জেলা পটুয়াখালী পৌরসভাধীন ৮ নং ওয়ার্ডস্থ্য এক নামে পরিচিত মৃধা বাড়ী, তিনি মৃধা বাড়ীর অন্যতম সন্তান। লেখাপড়া শেষ করে নিজ পায়ে দাড়াতে চাকরী নয় বেছে নেন ব্যবসা, এর শুরু ১৯৯০-১৯৯১ সন থেকে, পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে তিনি জীবনে প্রথম ঠিকাদারী শুরু করেন, তার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নাম (মো: রিয়াজ উদ্দিন ) ১৯৯০ সনে সৈরাচার সরকার পতনের আন্দোলনে পটুয়াখালী -১ আসনের একাধিকবার নির্বাচিত সাবেক সফল র্ধম প্রতিমন্ত্রী এ্যডভোকেট শাজহান মিয়ার সাথে নির্বাচনীয় প্রচারণায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক যাত্রা শুরু, স্বীকার হন তৎকালীন বি এন পি সরকারের আমলে একাধিক জুলুম নির্যাতনের রাজনৈতিক ভাবে আওয়ামীলীগ দলের তৎকালীন বিরোধী দলের সর্মথক ও প্রচারক এবং সক্রিয় সদস্য হওয়ায় একাধিক মামলা হামলার স্বীকার হয়েছিলেন। এবং ।তৎকালীন সরকার পতন আন্দোলন সংগ্রামের সক্রিয় কর্মি হিসেবে মাঠে তার অঘাত বিচরন করায় ,তিনি ১৯৯৬ সনে প্রথম সাবেক তিন(৩) নং ওয়ার্ডের পৌর আওয়ামীলীগের কমিটির সহ সভাপতির পদ ও পর পর দু বার পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়ীত্ব পেলে তিনি তা সফলতা এবং সুনামের সহিত তার দায়িত্ব পালন করেন।
রিয়াজ উদ্দিন মৃধা বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী-লীগ কে ভালোবাসি জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুকে বুকে ধারন করি কোখন দলের কাছে পোষ্ট বা পজিসন চাইনি আমি দলের ১ জন সদস্য এটা আমার বড় পরিচিতি আমার অনেক পাওয়া। তৎকালীন বিএনপি দলীয় স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আলতাফ হোসেন চৌধুরীর সময়ে একাধিক মামলা ও হামলার শিকার হন, এ সময়ে তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার হন, একাধীকবার তার বাসা বাড়ী ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করা হয়। কিন্তু তিনি থেমে থাকেন নি রাজনীতির পাশাপাশি তিনি তার ব্যবসা বানিজ্য চালিয়ে যান, নিজের আয়ত্বে নিয়েছেন তিন তিনবার পটুয়াখালী জেলার শ্রেষ্ঠ কর দাতার সম্মান।ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান রিয়াজ উদ্দিন এযাবত কর্ম সংস্থান হয়েছে প্রায় ছয় শতাধিক এর উপরে এবং তার সহোযোগীতায় নতুন ব্যাবসায়ী ও উগদ্যতা হয়েছেন অনেক বেড়েছে কর্মঠো জনবল, সচল চাকা তৈরী হয়েছে বেড়েছে কর্ম সংস্থান ।এ ছারা তিনি পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর তিন বারে অন্যতম পরিচালক জুনিয়র সহ-সভাপতি পদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সাথে ২০০৮ সাল থেকে পটুয়াখালী বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন,এবং কি বর্তমানেও পটুয়াখালী ট্র্যাক, কাবারভ্যান ও লড়ি মালিক সমিতির সভাপতি হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন ।বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির (ঢাকা কেন্দ্রীয়) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও ট্র্যাক কাভারভ্যান মালিক সমিতির সহ সভাপতির দায়িত্ব সফলতার সহিত পালন করে আসছেন।
যুব আইকন রিয়াজ উদ্দিন বলেন চাকরি নামে হরিণের পিছনে ছুটে সময় আর অর্থ ভেয় না করে কিছু করে সময় পার করেন সততা আর নিষ্ঠা আপনাকে আপনার লক্ষে পৌছে দিবে ।এছারা চলমান সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তথা আওয়ামী পরিবারের জন্য প্রতিনিয়ত যে কোন সভা সেমিনারে নিজের সক্রিয় অংশগ্রহন সহ দলীয় কর্মীদের নিয়ে র্সবদা ব্যাস্ত সময় পার করছেন। রয়েছেন পটুয়াখালী জেলা ক্রিয়া সংস্থার সহ সভাপতি হিসাবেও ব্যাক্তি জীবনে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক নেতা হিসেবে প্রতিনিয়ত দলীয় তথা ব্যবসায়ী মনভাবের অঘাত বিচরণ রয়েছে। সমাজ সেবা মূলক কাজে সাধ্যমত মানুষের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করেন, তিনি একজন সদালাপী হিসেবে সমাজে তার পরিচিতি রয়েছে। এক কথায় তিনি ব্যবসায়ী হিসেবে যুব সমাজের আইকন। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ ধর্মিও প্রতিষ্ঠানে সাধ্যতম অনুদান সহ প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করে থাকেন। সুসিল সমাজ বলছে রিয়াজ উদ্দিন মৃধা যুব সমাজের আইকন, বর্তমান সময়ের যুবকদের তার থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজ পায়ে দাড়ানোর আহবান জানান।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com