শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
আগৈলঝাড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক ৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে জরিমানা পিলখানায় বিডিআর ঘাতকদের ফাঁসি চাই : মোমিন মেহেদী তজুমদ্দিনে চরে গভীর রাতে সশস্ত্র মহড়া, উড়ছে লাল নিশান! আতংকিত কৃষক!! চরফ্যাসনে দেবরের শিশুপুত্রকে হত্যা চেষ্টা, অভিযোগ দায়ের ঝালকাঠিতে শাহাদাৎ হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড পিতার ক্রয়কৃত জমি রক্ষা ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ এনে পুত্রের সংবাদ সম্মেলন ববি উপাচার্যের সাথে বিভাগীয় চেয়ারম্যান ও ছাত্র উপদেষ্টাদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত পুলিশের করোনার ভ্যাকসিন রেজিষ্ট্রেশন বুথেই ভরসা বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের টিউমার অপসারন হয়নি॥ প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা নগরীতে ট্রান্সফ্যাটমুক্ত নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতের দাবীতে মানববন্ধন
বরিশালে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সেই শিক্ষা কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত ছিলেন

বরিশালে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সেই শিক্ষা কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত ছিলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মারা যাওয়া শিক্ষা কর্মকর্তা এ বি এম খলিলুর রহমান করোনা আক্রান্ত ছিলেন। নমুনা পরীক্ষার প্রাপ্ত ফলাফরে তার শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুরে হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন বিষয়টি মুঠোফোনে নিশ্চিত করেন। এর আগে গত মঙ্গলবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভোলা জেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খলিলুর রহমান মারা যান।
খলিলুর রহমান পরিবার বরিশাল নগরীতে বসবাস করতেন। গত রোববারও ভোলায় গিয়ে অফিস করেন। ওই দিন রাতে তাঁর জ্বর আসে। পর দিন সকালে বরিশাল শহরের বাংলাবাজার এলাকার বাসায় ফিরে আইসোলেশনে ছিলেন। শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাঁকে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনি মারা যান।
হাসপাতালে পরিচালক বাকির হোসেন বলেন, শিক্ষা কর্মকর্তা খলিলুর রহমানের করোনার উপসর্গ ছিল। তাই মৃত্যুর পর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়। বুধবার রাতে ওই পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়া যায়। তাতে তিনি করোনা ‘পজিটিভ’ ছিলেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। শিক্ষা কর্মকর্তা খলিলুর রহমানের গ্রামের বাড়ি বরগুনার তালতলী উপজেলায়। মারা যাওয়ার পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁকে গ্রামের বাড়িতে ওই দিনই দাফন করা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com