শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
৪ ফেব্রুয়ারী বরিশাল বিভাগীয় বিএনপির সমাবেশ সফল করতে গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ৪ ফেব্রুয়ারী বিএনপি বরিশাল বিভাগীয় সমাবেশ সফল করতে কাশিপুর ইউনিয়ন বিএনপির প্রচার পত্র বিতরণ ৪ ফেব্রুয়ারী বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে সদর উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ রিক্সা পেয়ে আনন্দে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীকে জড়িয়ে কাঁদলেন অক্ষমবৃদ্ধ ও দুপা-বিহীন প্রতিবন্ধী মুলাদীতে আজাহার উদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে নির্বাচিত হওয়ার অভিযোগ ঘুষ বাণিজ্যে কপাল পুড়েছে নান্টু ও মেহবুলের, ভাগ্য খুলেছে আবুল হোসেন ও শাহীনের কিশোর গ্যাং কালচার এ বাংলাদেশ অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিএনপি ২৯০টি আসনে জয় লাভ করবে: বরিশালে রুমিন ফারহানা শেখ হাসিনার অধীনে আর নির্বাচন নয়: মির্জা ফখরুল বরিশাল আসছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামীম এমপি
এবার মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যান ‘মিঠু কেলেংকারিতে’ আ’লীগ বিব্রত

এবার মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যান ‘মিঠু কেলেংকারিতে’ আ’লীগ বিব্রত

দখিনের খবর ডেস্ক ॥ বরিশালসহ এই অঞ্চলের আওয়ামী লীগ নেতা ও জনপ্রতিনিধিরা বেসামাল হয়ে পড়েছেন কী না- তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে চলমান ঘটনা প্রবাহে। ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া আ’লীগ নেতা ও উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হক মনির এক নারীর সাথে প্রতারণা করায় মিডিয়া যখন সোচ্চার ঠিক তখন মুলাদীর দলীয় উপজেলার তারিকুল হাসান খান মিঠু জনৈক এক সংবাদকর্মীকে সাঙ্গপাঙ্গ দিয়ে পেটালেন। এবং নিজে ঘটনা প্রত্যক্ষ করে ওই সংবাদকর্মীর ক্যামেরাসহ দুটি সেলফোন ছিনিয়ে নিয়ে যান।
কালবিলম্ব প্রাপ্ত তথ্যমতে- গত বুধবার দুপুরে শহরে প্রকাশ্য এই ঘটনার সূত্রপাত্র ঘটে উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাগিনা মোটরসাইকেল চালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে একটি ট্রাকের ধাক্কা খেয়ে দুর্ঘটনা পতিত হয়। এই ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যান ভাগিনার পক্ষ ওই ট্রাক চালককে শায়েস্তা করার উদ্যোগ নিলে সেই চিত্র ক্যামেরাবন্দি করেন পার্শ্ববর্তী হিজলা উপজেলার সাংবাদিক মো. সেলিম রাঢ়ী। সেখানেই ঘটে বিপত্তি, কেন ছবি তোলা হল, এমন প্রশ্নে ক্ষুব্ধ হয়ে মুলাদী আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে সেলিম রাঢ়ীকে একরকম ধরে নিয়ে দফায় দফায় শারীরিক নির্যাতন চালায়। এবং পরিবার পরিজন নিয়ে ‘খিস্তিখেউর’ করে।
এসময় তার কাছে থাকা একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে একটি ফোনে দেখতে পায় ওই ঘটনা বরিশালের সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে। এতে আরও তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন মিঠু, তিনি ওই সেলফোনটি নদীতে নিক্ষেপ করে এবার বরিশালের সাংবাদিকদের উদ্দেশে কু-রুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন এবং সংবাদ প্রকাশ পেলে দেখে নেওয়ারও হুমকি দেন। এই তথ্য সেই উপস্থিত একাধিক ব্যক্তি নিশ্চিত করে।
মো. সেলিম রাঢ়ী বরিশাল থেকে প্রকাশিক দৈনিক আজকের পরিবর্তন পত্রিকার হিজলা উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। তিনি জানান, বরিশালের আসার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পথিমধ্যে মুলাদী শহরে পৌছালে মিঠু গোষ্ঠীর এই অনাচারের ছবি তিনি ক্যামেরাবন্দি করেন। মিঠুর অনুসারীদের ধারণা আগন্তক এই সাংবাদিক সম্ভবত এনিয়ে সংবাদ প্রকাশ করতে পারেন। সেই অনুমান থেকেই সেলিমকে নাজেহাল করে এক ধরনের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়, যেন সংবাদ প্রকাশ না পায়।
মুলাদী প্রেসক্লাব সভাপতি দেলোয়ার হোসেন তার সহকর্মী নিগৃত হওয়ার খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের দ্বারস্থ হলে হুমকিস্বরুপ নানা কথায় শেষাংশে ক্যামেরা ও একটি সেলফোন ফিরিয়ে দিলেও নদীতে নিক্ষেপ অপর ফোনটির বিষয়ে সুরহা দিতে নারাজ বলে জানিয়ে দেন। এসময় মো. সেলিম রাঢ়ীকে সেখান থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে সহকর্মীরা। মুলাদীর স্থানীয় সূত্রগুলো বলছে, উপজেলা চেয়ারম্যান মিঠু আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় তিনি এখন এ অঞ্চলের হর্তা-কর্তা। ছাত্রল-যুবলীগ যে সংগঠনই বলা হোক না কেন সর্বক্ষেত্রেই নিজ আত্মীয়দের পদ-পদবীতে প্রাধন্য দিয়ে একটি নিজস্ব বাহিনীর আদলে গড়ে তুলেছেন গোটা দল। সেখানকার সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারাও স্বস্তিতে নেই। থানা পুলিশতো তার আঙ্গুলের ইশারায় দুলছে। ফলে অনেক নির্যাতিতরা মিঠু বাহিনীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে কোন প্রতিকার পাচ্ছেনা। অথবা থানার দরজায় সাহস নিচ্ছে না।
যেমনটি সেলিম রাঢ়ীর বেলায় ঘটেছে। একজন পেশাদার সাংবাদিক হওয়া সত্ত্বেও প্রকাশ্যে নিগৃত এবং দলীয় কার্যালয়ে নিয়ে শারীরিক নির্যাতন করলেও আইনের আশ্রয় নিতে পারছেন না। কারণ এ ধরনের পদক্ষেপ নিলে এলাকায় পরিবার নিয়ে টিকে থাকা দায় হয়ে পড়ার শঙ্কায় তিনি গৃহে অন্তরীণ অবস্থায় রয়েছেন। হিজলার সাংবাদিকেরা পরিস্থিতিগত কারণে নিশ্চুপ থাকতে বাধ্য হচ্ছে। সেখানে মুলাদীতে কর্মরত সাংবাদিকরা এই বিষয় নিয়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার ইচ্ছা থাকলেও পারছেন না। কারণ মিঠুর হাত শুধু মুলাদীতেই নয়, হিজলাতেও প্রসারিত। সঙ্গত কারণে এই অনাকাঙ্কিত ঘটনার সংবাদ অনেক গণমাধ্যমে প্রকাশ পায়নি।
উপরন্ত উপজেলা চেয়ারম্যান মিঠু বুধবারের ঘটনার আত্মপক্ষ সমর্থন করতে গিয়ে আঞ্চলিক পত্রিকাসমূহে মনগড়া প্রতিবাদ পাঠিয়ে সেদিনের কান্ড-কাহিনী ভিন্নতায় উপস্থাপন করেন। স্থানীয় সাংবাদিকদের একটি সূত্র জানায়, মিঠু নিজে ফোন করে এবং তার অনুসারীদের সাংবাদিকদের বাড়ি বাড়ি পাঠিয়ে এই বিষয়ে নিরব পরামর্শ দিয়েছেন। মুলাদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফয়েজ উদ্দিন এ ঘটনা জানলেও তিনি নিবর থাকায় কোন এক মাধ্যমে জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলামকে বিষয়টি অবহিত করে। তিনি দু:খ প্রকাশ করে বলেন- ওই সংবাদকর্মী আইনী সহায়তা চাইলে তিনি যেই হোক না কেন, তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। এ ঘটনা এভাবেই বরিশাল জেলা আ’লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দসহ মিডিয়াকর্মীরা অবগত হয়েছেন। বিষয়টি সম্পর্কে মন্তব্য রাখতে গিয়ে জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস বলেন- গোটা ঘটনাটি অনাকাঙ্কিত। কেন এ ধরনের দায়িত্বশীল নেতাদের অপকর্ম-অপরাধ সামাল দেওয়া যাচ্ছে অথবা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে শিথিলতার বিষয়ে প্রশ্নের প্রতিত্তোরে এই শীর্ষ নেতা জানালেন সময় বলে দেবে আ’লীগের ব্যানার ব্যবহার করে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করলে তার জবাব কিভাবে দিতে হয়। তবে তার কথায় আভাস পাওয়া যায়, বিভিন্ন উপজেলা পর্যায়ের দায়িত্বশীল নেতাদের কর্মকান্ডে জেলার নেতারা রীতিমত বিব্রত। অবশ্য ঘটনার অনুঘটক তারিকুল হাসান মিঠুর বক্তব্য হাস্যকরে পরিণত হয়েছে। বরিশালের সংবাদকর্মীরা তার সাথে যোগাযোগ করলে বিনয়ের সুরে ভাই সম্বোধন করে বললেন তুচ্ছ একটি ঘটনাকে বড় করে দেখা হচ্ছে। যেমনটি ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হক মনিরের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে দিনের দিন দেহ ভোগের পর এক তরুণী বরিশাল আদালতে প্রতারণা মামলা করলে তার বক্তব্য ছিল, সেতো পতিতা। যদি সেই তরুণী পতিতা হয় তাহলে তার সাথে অন্তরঙ্গ ছবি কেন- এমন প্রশ্নে খেই হারিয়ে ফেলে মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যানের ন্যায় পত্রিকায় প্রতিবাদ পাঠিয়ে নিজের সাফাই নিজেই গাইলেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com