মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
মেহেন্দিগঞ্জে জুয়েলার্স থেকে স্বর্ণ চুরি : চোরচক্রের ৩ সদস্য আটক

মেহেন্দিগঞ্জে জুয়েলার্স থেকে স্বর্ণ চুরি : চোরচক্রের ৩ সদস্য আটক

মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিবেদক ॥ মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় ক্রেতা সেজে জুয়েলারি দোকান থেকে ৩০ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার চুরির ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মাথায় স্পিডবোট চালকের সহযোগিতায় আন্তঃজেলা স্বর্ণ চোর চক্রের তিন নারী সদস্যকে বরিশাল নগরী থেকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তাদের সাথে থাকা চক্রের অপর নারী সদস্য চুরি করা স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন।
এর আগে সোমবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার স্কুল রোড এলাকার বন্ধন জুয়েলার্সে এই চুরির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় মঙ্গলবার (২১ জুলাই) ওই জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানের মালিক মো. মাসুম বিল্লাহ বাদী হয়ে মেহেন্দিগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার মামলা নম্বর ১৩। আটককৃত চোর চক্রের তিন নারী সদস্য হলেন ঢাকার কামরাঙ্গির চরের ঝাউতলার বাসিন্দা সাইফুল ইসলামের স্ত্রী মোসা. হাসি বেগম ওরফে লাকি (৪৫), রাজধানীর রমনা থানাধীন মগবাজার এলাকার শহীদুল ইসলামের স্ত্রী জোহরা বেগম (৫৫) ও একই এলাকার বাসিন্দা আবুল হোসেনের স্ত্রী ঝর্ণা বেগম (৪৫)।
এছাড়া শিল্পী নামে চক্রের অপর সদস্য স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে গেছেন। তিনি ওই একই এলাকার সদস্য বলে জানিয়েছেন মেহেন্দিগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আবিদুর রহমান।
ক্ষতিগ্রস্ত বন্ধন জুয়েলার্সের মালিক মাসুম বিল্লাহ জানান, ‘সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বোরকা পরা তিনজন মহিলা স্বর্ণের চেইন কেনার কথা বলে দোকানে আসেন। তাদের কথামতো চেইনের একটি বক্স বের করে দেখানোর জন্য তাদের সামনে দেওয়া হয়। এসময় দূরে দাড়িয়ে থাকা বোরকা পরা অপর এক নারী এসে রূপার নূপুর দেখাতে বলেন।
তিনি বলেন, ‘পেছনে ফিরে ওই নারীর জন্য রূপার নূপুর আনতে গেলে তাদের মধ্যে তিনজন বক্সে থাকা ৩০ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন নিয়ে সটকে পড়েন। এর পর পরই অপর নারীও কৌশলে জুয়েলারি দোকান থেকে কেটে পড়েন। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি অনুধাবন করতে না পারলেও পরে বক্স কাউন্টারে রাখতে গিয়ে দেখতে পান চেইন নেই।
মাসুম বিল্লাহ বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে ওই চার নারীর খোঁজ খবর নিতে শুরু করেন। এসময় জানতে পারেন ওই চারজন মেহেন্দিগঞ্জ থেকে স্পিডবোট রিজার্ভ করে বরিশালের তালতলী এলাকায় নেমেছেন। পরে স্পিডবোট চালকের কাছ থেকে জানতে পারে ওই চার চোর নগরীর নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালের দিকে গেছেন।
তাৎক্ষণিকভাবে দোকান মালিকের সাথে একটি ভাড়ার মোটরসাইকেল নিয়ে চোরদের পিছু ছোটেন স্পিডবোট চালক। এক পর্যায় দুপুর ২টার দিকে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় গিয়ে চারজনকে খুঁজে পেলে একজন কৌশলে স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ ওই তিনজনকে আটক করে।
মেহেন্দিগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আবিদুর রহমান জানান, ‘সোমবার রাতে আটককৃত আন্তঃজেলা স্বর্ণ চোর চক্রের তিন নারী সদস্যকে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশের কাছ থেকে তাদের জিম্মায় নেন। এমনকি মঙ্গলবার দুপুরে এই ঘটনায় জুয়েলার্স মালিক বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ওই তিন চোরকে। তিনি আরও বলেন, ‘আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। কদিন আগে ভোলায় একটি জুলেয়ার্সে স্বর্ণ চুরির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার সাথেও তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে স্বীকার করেছেন। এছাড়া আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকলেও তদন্তের স্বার্থে তা বলা সম্ভব নয় জানিয়ে ওসি বলেন, ‘চুরির ঘটনায় পালিয়ে যাওয়া চক্রের অপর সদস্য এবং তাদের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com