মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২০, ১২:২৩ অপরাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
কোথায় আছেন বিন্দু?

কোথায় আছেন বিন্দু?

বিনোদন: ২০০৬ সালের লাক্স সুপারস্টার প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ আফসান আরা বিন্দু। টিভি নাটক-টেলিছবি, বিজ্ঞাপন ও চলচ্চিত্রে কাজ করে শীর্ষ অভিনেত্রীদের কাতারে নিজেকে দাঁড় করান। প্রথম ‘দারুচিনি দ্বীপ’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি মিডিয়া অঙ্গনে পা রাখেন। পরে শাকিব খানের সঙ্গে ‘এই তো প্রেম’ ছবিতে অভিনয় করেও বেশ আলোচনায় আসেন তিনি। তাকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রত্যাশাও বেড়ে যায়। অনেকে বিন্দুকে চলচ্চিত্রের সম্ভবনাময়ী অভিনেত্রী হিসেবেও দেখেন। কিন্তু ‘জাগো’ ছবিটি করার পর তাকে আর চলচ্চিত্রে পাওয়া যায়নি সেভাবে। অন্যদিকে ছোট পর্দায়ও একজন সুঅভিনেত্রী হিসেবে বিন্দু নিজেকে প্রমাণ করেছিলেন।
কিন্তু ধীরে ধীরে ছোট পর্দার কাজও কমিয়ে দেন তিনি। এ অভিনেত্রী ২০১৪ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেন আসিফ অ্যাপারেলসের কর্ণধার আসিফ সালাহউদ্দিন মালিককে। তারপর মিডিয়া থেকে ক্রমশ দূরে সরে চলে যান বিন্দু। ঘর-সংসারের জন্যই তিনি প্রিয় অঙ্গন থেকে আড়ালে রয়েছেন বলে জানা যায়। কিন্তু বিধিবাম! চলতি বছরের শুরুতে গুঞ্জন ওঠে ঘর ভাঙছে বিন্দুর। স্বামী এবং শ্বশুর বাড়ির কারো সঙ্গেই তার সম্পর্ক নেই বলেও গুঞ্জন ওঠে। বিশেষ করে মডেল-অভিনেত্রী সুজানার সঙ্গে তার স্বামী আসিফের প্রেমঘটিত কারণেই বিচ্ছেদ হচ্ছে বলে অনেকেই মন্তব্য করেন। তবে সেই সময় সুজানা এটিকে মিথ্যে অপপ্রচার বলে দাবি করেন। বিন্দুর স্বামীও এই বিষয়ে কোনো মুখ খুলেননি। বিন্দুর বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে জানার জন্য তার স্বামী আসিফের মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এই সময়ে শোবিজের কোথাও নেই বিন্দু। কোনো নাটক-টেলিছবি ও বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে না তাকে। মিডিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছেন তিনি। তার শুভাকাক্সক্ষী, সহকর্মী ও ভক্তদের প্রশ্ন তাহলে বিন্দু কোথায়? তবে কি শোবিজের দুনিয়া ছেড়ে নিজেকে আড়াল করে নিয়েছেন তিনি। তাকে কি আর কখনো রঙিন দুনিয়ায় দেখা যাবে না। এই সময়ে বিন্দু কি দেশে নাকি দেশের বাইরে বসবাস করছেন- সেটিও কেউ নিশ্চিত নন বলেই জানা যায়। বিন্দুর ব্যবহৃত নাম্বারটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com