শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
বরিশালে নয়নাভিরাম লাল শাপলার রাজ্যে বিলে ছুঁটছেন প্রকৃতি প্রেমিরা বরিশালে প্ল্যানের শর্ত ভঙ্গ করে বহুতল ভবন নির্মান: প্রায় ৬৫ লাখ টাকা জরিমানা বরিশালের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের সতর্ক করলেন জেলা প্রশাসন বরিশালে বেকারী ফ্যাক্টরীসহ ৭ ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে জরিমানা ঢাকা-বরিশাল নৌপথে একের পর এক খুন, যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে আগৈলঝাড়ায় হা-ডু-ডু খেলা অনুষ্ঠিত গৌরনদীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বিসিসি মেয়রের সঙ্গে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির সৌজন্য সাক্ষাৎ বাউফলে তিন যুবলীগ নেতার হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধন কুয়াকাটায় দিনমজুর, কাঠমিস্ত্রীর জমি জোর-জবরদস্তি করে দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
ববি’র হলে শিক্ষার্থী নির্যাতন; তদন্ত কমিটি গঠন

ববি’র হলে শিক্ষার্থী নির্যাতন; তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শের-ই-বাংলা আবাসিক হলে শাহজালাল নামের এক শিক্ষার্থীকে আটক করে নির্যাতনের ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠণ করা হয়েছে। আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা হলের প্রভোস্ট মুহাম্মদ ইব্রাহিম মোল্লা জানান, মঙ্গলবার রাতে শাহজালাল নামের এক ছাত্রকে হলের মধ্যে আটকে রেখে নির্যাতনের ঘটনায় বুধবার দুপুরে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত সকল আবাসিক শিক্ষকদের ঘটনার বিষয়ে অবহিত করা হয়। এরপর আবাসিক শিক্ষক ইয়াসিফ আহমেদ ফয়সলকে আহবায়ক করে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটনের জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠণ করা হয়েছে।

নির্যাতনের স্বীকার ববি’র ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র এবং শেরে বাংলা হলের ৪০১৬ নম্বর কক্ষের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ শাহজালাল জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে ৪০১৬ নম্বর কক্ষ থেকে তাকে ডেকে ১০০১ নম্বর কক্ষে নিয়ে যায় জিওলজি এন্ড মাইনিং বিভাগের ছাত্র মোঃ শান্ত। সেখানে রুমের মধ্যে ঢোকার পর দরজা বন্ধ করে দেয়া হয়। এরপর তার মুখ বেঁধে মারধর ও নির্যাতন করা হয়। ওই রুমে তখন চারজন পরিচিতসহ কমপক্ষে আটজন অপরিচিত একইবর্ষের ছাত্ররা ছিলো। তাদের হাতে ছিলো রড ও দেশীয় ধারালো অস্ত্র। তারা তার (শাহজালাল) সামনে বসেই তাকে কোথায় নিয়ে কুপিয়ে মারবে সে বিষয়ে আলাপ করছিলো। একপর্যায়ে সে (শাহজালাল) দ্রুত দরজার সিটকানি খুলে দৌড়ে ৪০১৪ নম্বর রুমে আশ্রয় নেয়। অভিযুক্তরা ওই রুমে শাহজালালকে ধরে আনতে যায়। এসময় ওই রুমে থাকা শিক্ষার্থীরা প্রতিরোধ গড়ে তুললে অভিযুক্তরা ব্যর্থ হয়।

শাহজালাল আরও জানায়, ওইদিন বঙ্গবন্ধু হলের বাংলা বিভাগের নাভিদ ও অর্থনীতি বিভাগের মোহাম্মদ সাইদের মধ্যে কক্ষ পরিবর্তন করা নিয়ে হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। এরজের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় সাইদ গ্রুপের চারজন আহত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হয়। ওই জেরধরে সাইদের পক্ষের লোকজন তার (শাহজালাল) উপর নির্যাতন চালায়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com