রবিবার, ১৩ Jun ২০২১, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি প্রধানমন্ত্রী ঘরের চাবি হস্তান্তর করবেন ২০ জুন নগরীর বিভিন্ন সড়কের বেহাল দশা! কলাপাড়ায় উপকূলীয় দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস বিষয়ক কর্মসূচী কুয়াকাটায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যে মাছ ধরায় নৌ-পুলিশের হাতে ৪ ট্রলারসহ গ্রেফতার-১৬ জেলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন: রাজাপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা সুদখোরদের গালিগালাজ, উৎপাত ও প্ররোচনায় গৌরনদীতে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা আগৈলঝাড়ায় নিজের টাকায় গৈলা বাজারের খাজনা পরিশোধ করলেন আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি আগৈলঝাড়ায় সাবেক পুলিশ সদস্যর বাড়ির গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে নলছিটি বাসষ্ট্যান্ড-থানার পুল সড়কের সংস্কার কাজ
আমতলীতে প্রবাহমান খাল এখন বসতবাড়ি!

আমতলীতে প্রবাহমান খাল এখন বসতবাড়ি!

আমতলী প্রতিনিধি ॥ বরগুনার আমতলী উপজেলার তালুকদার বাজার এলাকায় চাওড়া খাল অবৈধভাবে দখল করে দুই পাড়ে কমপক্ষে দেড় শতাধিক পাকা-আধাপাকা স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। এতে ধীরে ধীরে খালটি সংকুচিত হয়ে আসছে। পাশাপাশি এসব অবৈধ স্থাপনায় বসবাসকারী পরিবারগুলো ময়লা-আবর্জনা ও মলমূত্র ফেলে খালের পানি দূষিত করছে। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার চাওড়া খালটি আমতলী পৌরসভা, সদর, চাওড়া ও হলদিয়া ইউনিয়নের ওপর দিয়ে প্রবাহিত৷ একটি পৌরসভা ও তিনটি ইউনিয়নের ৩০টি গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষের কৃষিজ পণ্য পরিবহন, গৃহস্থালি কাজ ও চাষাবাদ সরাসরি এই খালের ওপর নির্ভরশীল। ১৯৯০ সালে এই খালের তালুকদার বাজার এলাকায় সেতু নির্মাণের পর এলাকাটি ঘিরে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠে। এই সুযোগে খালের দুই পাড় দখলের হিড়িক পড়ে যায়। আধা কিলোমিটার এলাকাজুড়ে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা রাতারাতি খাল দখল করে সেখানে পাকা-আধাপাকা বাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। ঘর তোলার জন্য খালের মাঝ বরাবর বাঁশ ও কাঠের খুঁটি পুঁতে সেখানে মাটি ও ইটের টুকরো ফেলে খাল ভরাট করেন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খাল দখল করে প্রায় দেড় শতাধিক স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। ওই সব স্থাপনায় বসবাসকারীরা খালে ময়লা-আবর্জনা এবং খোলা পায়খানার মাধ্যমে মলমূত্র ফেলছে। তা ছাড়া দুই পাড় ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ কারায় প্রবহমান খালের গতিপথ প্রায় বন্ধের পথে। স্রোত বাধাগ্রস্ত হওয়ায় পলি পড়ে খালের নাব্যতা হ্রাস পাওয়ায় নৌচলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে ও কচুরিপানায় ভরে গেছে। এভাবে দখল-প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকলে অচিরেই নৌ চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যাবে বলে স্থানীয়রা আশঙ্কা করছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই এলাকার বেশ কয়েকজন ব্যক্তি বলেন, তালুকদার বাজারটি দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম ধান ও কৃষিপণ্যের বাজার। ওই এলাকায় কৃষকের উৎপাদিত ধান, তরমুজ, বাদাম ও আলুসহ অন্যান্য পণ্য এ খাল দিয়ে বাজারে আনা-নেওয়া করেন। এ ছাড়া খালের দুই পাড়ে আমতলী পৌরসভা, সদর, হলদিয়া ও চাওড়া ইউনিয়নের অন্তত ৩০টি গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার একর ফসলি জমির চাষাবাদ ও সেচ নির্ভর করে। এলাকার প্রায় ৫০ হাজার বাসিন্দা এই খালের পানি গৃহস্থালির কাজে ব্যবহার করেন। আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আসাদুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন, খাল দখল করে যাঁরা অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করেছেন, সরেজমিন তদন্ত করে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com