সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৯:৫৭ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
দুই মাদক ব্যবসায়ীর হামলায় দখিনের খবরের নির্বাহী সম্পাদকসহ আহত ২ বরিশালের তিন জেলার পতিত জমিকে চাষের আওতায় আনা হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী সরকারকে ক্ষমতায় রাখতে দালালী করবে সেই সব জাতীয় দালালদের চিহ্নিত করে রাখার আহবান-তারেক রহমান বানারীপাড়া বাইশারী ইউনিয়নে ইফতার মাহফিল ও দোয়া মোনাজাতে এমপি মোঃ শাহে আলম বরিশাল নগরীতে বসবাসকারী নাসির জমাদ্দার বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি, জেলাসহ হাইকমান্ডে সভাপতি ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে ৩০ নেতার অভিযোগ হৃদরোগে আক্রান্ত সাংবাদিক সোহেল সানি আবারো হাসপাতালে মানুষ ক্রমে নীতিজ্ঞান শূন্য হয়ে পড়ছে! স্বামী ঘরে ফিরে দেখেন হাত-মুখ বেধে স্ত্রীকে ধর্ষণ করছে প্রতিবেশী লালমোহনের কাশেম চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে একের পর এক দূর্নীতির চিত্র বেড়িয়ে আসছে বানারীপাড়ায় বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় করোনার গনটিকা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত 
বরিশাল নগরীতে বসবাসকারী নাসির জমাদ্দার বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি, জেলাসহ হাইকমান্ডে সভাপতি ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে ৩০ নেতার অভিযোগ

বরিশাল নগরীতে বসবাসকারী নাসির জমাদ্দার বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি, জেলাসহ হাইকমান্ডে সভাপতি ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে ৩০ নেতার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
পৌর এলাকার স্থায়ী কিংবা অস্থায়ী বাসিন্দা নন তবুও বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি তিনি। নেই তেমন কোন দলীয় কিংবা সাংগঠনিক কর্মকান্ডেও। বরিশাল সিটি এলাকায় বসবাস করে দীর্ঘ ৬ বছর ধরে আগলে রেখেছেন বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতির মত গুরুত্বপূর্ন পদ। তারপরও দলের বাস্তব অবস্থান বিবেচনা করে নেতাকর্মীরা বছরের পর বছর ধরে সহ্য করে আসছেন বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি নাসির জমাদ্দারকে। একই অবস্থা দলের গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ সম্পাদক পদ আগলে রাখা মাদ্রাসা শিক্ষক মোফাজ্জল হোসেন হাওলাদারেরও। চাকরির সমস্যা হবে এমন দোহাই দিয়ে দলের সাংগঠনিক কর্মকান্ড থেকে নিজেকে দুরে রেখে সরকার দলীয় লোকজনের সাথে ব্যালেন্স করে সাংগঠনিকভাবে দলের ব্যাপক ক্ষতি করছেন মর্মে গুরুতর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধেও। দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা এই দুই নেতার নানা বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারনে মারাত্মকভাবে দূর্বল হয়ে পরেছে বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সাংগঠনিক কর্মকান্ড। ফলে বিতর্কিত এই দুই নেতার বিরুদ্ধে অভিভাবক হারা বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা বরিশাল জেলা দক্ষিণ বিএনপিসহ দলের দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত নেতার দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেন। ৩০ নেতার স্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ গত ২৬ মার্চ-২০২২ ইং তারিখ রিসিভ করেন বরিশাল জেলা দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক অ্যাভোকেট মজিবর রহমান নান্টু। একই অভিযোগ ১০ এপ্রিল-২০২২ ইং তারিখ কেন্দ্রীয় বিএনপির পক্ষে রিসিভ করেন রফিকুল ইসলাম।
সম্প্রতি তোড়জোড় চলছে পুরানো কমিটি ভেঙে পৌর বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন করার। এমন খবরে আবার দাম্ভিকতা শুরু করেছেন পৌর বিএনপির সভাপতি নাসির জোমাদ্দার ও তার দোসর সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল। নেতাকর্মীদের হুংকার দিচ্ছেন তাদের পছন্দমতোই হবে আহবায়ক কমিটি। যাকে খুশি রাখবে যাকে খুশি বাদ দেবেন তারা। এমন হুংকারের পর আর বসে থাকেনি পৌর বিএনপির নেতাকর্মীরা। তাদের বিতর্কিত কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপিসহ অঙ্গ সংগঠনের ৩০ জন নেতার স্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বরিশাল জেলা দক্ষিন বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান নান্টু ও সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট আকতার হোসেন মেহবুল বরাবরে। যার তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থাগ্রহনের জন্য অনুলিপি প্রেরন করা হয়েছে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ কেন্দ্রীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল নেতার দপ্তরে।
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে নাসির জোমাদ্দার পৌর বিএনপির আহবায়ক থাকা অবস্থায় ওয়ার্ড বিএনপির নেতাকর্মীদের মতামত না নিয়ে নিজের পছন্দমত লোকদের সভাপতি সম্পাদক বানিয়েছেন। পরে তাদের ভোট ও সমর্থনে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন নাসির জমাদ্দার ও সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন। এই দুই নেতা নির্বাচিত হবার পর বিগত ৬ বছরে পৌর বিএনপির কোন পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়নি। ফলে কে কোন পদে আছেন তাও দলের কেউ জানেন না। নাসির জমাদ্দার পৌর বিএনপির সভাপতি হলেও পৌর এলাকায় স্থায়ী কোন ঠিকানা নেই তার। বরিশাল নগরীর কাউনিয়া এলাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করেন সভাপতি নাসির জমাদ্দার। যে কারনে দলীয় সকল কর্মকান্ডে সাংগঠনিকভাবে পিছিয়ে রয়েছে বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপি।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে নাসির জোমাদ্দার বলেন, আমার বিরুদ্ধে এতো অভিযোগ। তাহলে এতোদিন কোথায় ছিলো তারা। এখন কমিটি গঠনের সময় এসেছে তাই একটি মহল মাঠে নেমেছে আমাকে হেয়পতিপন্ন করার জন্য। তিনি বলেন, এলাকায় আমার একটি প্রতিপক্ষ রয়েছে যারা আমার বিরুদ্ধে অহেতুক অভিযোগ এনেছে। বরিশাল নগরীতে বসবাসের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমি ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি, আগামীতেও হবো। যারা আমার বিরোধীতা করছেন কিংবা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন তারা হয়রানী ছাড়া কিছুই করতে পারবে না। এবিষয়ে জানতে চাইলে বারেগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মাদ্রাসা শিক্ষক মোফাজ্জল হোসেন হাওলাদার বলেন, অভিযোগকারীর মধ্যে একজন টোকাই রয়েছেন যিনি বিগত পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে ইলেকশন করেছেন। ঐ নির্বাচনকালিন সময়ে ৫০ টাকাও চাঁদা নিয়েছেন তিনি। বিরোধী দলে থেকে বিগত ১৩ বছরে সরকারবিরোধী আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে কয়টি মামলার শিকার হয়েছেন এমন প্রশ্নের জবাব তিনি এড়িয়ে যান এবং বলেন যাদের কোন অস্তিত্ব নেই তারা অভিযোগ দিয়ে আমার কিছুই করতে পারবে না।
তৃণমূল পর্যায়ে নেতাকর্মীদের সাথে আলাপকালে তারা জানান, পদ পদবী আগলে রাখা বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির বিতর্কিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পুনরায় পদ পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। তারা বাকেরগঞ্জের রাজনীতিতে এতোই শক্তিশালী যে বিগত পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতাও কারো ছিলো না। এর কারন হিসেবে তারা বলেন, সভাপতি নাসির জমাদ্দার ও সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন সরকার দলীয় লোকজনের সাথে ব্যালেন্স করে তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আন্দোলন সংগ্রামে দলীয় নেতাকর্মীদের রাজপথে ঠেলে দিয়ে নিজেরা পালিয়ে থাকেন। বিগত পৌর নির্বাচনে দলের প্রার্থীর বিরোধীতা করে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করে বিএনপির রাজনীতি করার নুণ্যতম যোগ্যতাও হারিয়ে ফেলেছেন তারা। তাই এখন দুঃসময়ে দলের হাল ধরা বিএনপি মনোনীত দলীয় প্রার্থী মনিরুজ্জামান মনির ভাইর বিরোধীতা করছেন। তারা আক্ষেপ করে বলেন, আমরা জানি বরিশাল জেলা দক্ষিণ বিএনপির নবগঠিত আবায়ক কমিটির কাছে আমরা সুবিচার পাবো না, তাই কেন্দ্রীয় কমিটিসহ আগামীর প্রধানমন্ত্রী দেশ নায়ক দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেবের কাছেও অনুলিপি দিয়েছি। নাম না প্রকাশের শর্তে অভিযোগকারী কয়েকজন নেতা বলেন, বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি নাসির জমাদ্দার ও সাধারণ সম্পাদক মোফজ্জেল হোসেন দুজনই সুযোগ সন্ধানী নেতা, এদের কোন সাংগঠনিক দক্ষতা ও জনসম্পৃক্ততা নেই। এমনকি সাধারণ নেতাকর্মীদের সাথেও তাদের সম্পর্ক নেই বললেই চলে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বরিশাল জেলা দক্ষিন বিএনপির আহবায়ক এ্যাড মজিবর রহমান নান্টু বলেন, বাকেরগঞ্জ পৌর বিএনপির কারো পক্ষে বিপক্ষে কোন অভিযোগ আমি পাই নাই কিংবা কিছু পাই নাই। আপনার নিজের স্বাক্ষরিত রিসিভ করা কপি আমাদের কাছে আছে মর্মে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি সাফ অস্বীকার কারেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com