বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতির সমস্যা সমাধানে নগর পিতা সাদিক আবদুল্লাহ’র হস্তক্ষেপ কামনা, বিসিক অশান্ত ॥ উদ্বিগ্ন শিল্প মালিক সমিতি বরিশালে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে ৪২তম যুবদলের জন্মদিন উদ্যাপিত চন্দ্রমোহনে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যােগে ৭দিন মেয়দী অপ্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ বিসিকে শিল্প মালিককে মারধর ও চাঁদাবাজির ঘটনায় মামলা নিতে থানা পুলিশের কালক্ষেপণ কলাপাড়ায় বিশ্ব নবী (সাঃ)কে ফ্রান্সে কার্টুন একে অবমাননা করায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ বরিশাল মহানগর অটোরিক্সা মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন নলছিটিতে ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তার উপকারভোগীদের মাঝে স্বাস্থ্য সামগ্রী বিতরন নলছিটিতে ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত চরের মানুষের জন্য বিদ্যুৎ মুজিববর্ষের শ্রেষ্ঠ উপহার-এমপি জ্যাকব মেহেন্দিগঞ্জে যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত
ঝালকাঠির ছয় গ্রাম লন্ডভন্ড দুই মিনিটের ঝড়ে

ঝালকাঠির ছয় গ্রাম লন্ডভন্ড দুই মিনিটের ঝড়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক:: আম্ফানের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতে ঝালকাঠিতে ২ মিনিটের টর্ণেডো বয়ে গেছে ছয় গ্রামের ওপর দিয়ে। এতে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে শতাধিক বসতঘর, একটি বিদ্যালয়, মসজিদ ও মাদরাসা। উড়ে গেছে টিনের চালা, উপড়ে পড়েছে এবং ভেঙে গেছে ছোট বড় অসংখ্য গাছপালা।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার রাতে বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত শুরু হয়। রাত ৯ টার দিকে আকষ্মিকভাবে প্রচন্ড গতিতে টর্নেডো শুরু হয়। মাত্র দুই মিনিটের টর্নেডো কেওড়া ইউনিয়নের সারেঙ্গল, রণমতি, নৈকাঠি, আইহোর, বামনকাঠি ও পার্শ্ববর্তী কীর্ত্তিপাশা ইউনিয়নের তারপাশা গ্রামের উপর দিয়ে বয়ে যায়। এতে বসতঘর, গাছ পালাসহ অন্যান্য স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বসতঘর ভেঙে পড়ায় অনেকেই খোলা আকাশের নিছে বসবাস করছেন। বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে ও তার ছিড়ে রাত থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। টর্নেডোর ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে উপজেলা প্রশাসন কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজী আকতার।

টর্নেডোতে ক্ষতিগ্রস্ত হাফিজুর রহমান উজির সাংবাদিকদের বলেন, কিছু বুঝে ওঠার আগেই টর্নেডোতে আমার বসতঘর ভেঙে যায়। ঘরের টিনের চালা উড়িয়ে পুকুরে ফেলে দেয়। আমরা এখন খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছি। একই অবস্থা শহিদ, সবুর, পরিবানুসহ অন্যান্য ক্ষতিগ্রস্তদের। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানেও আমাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু ওই সময় বসতঘর ভাঙেনি। হঠাৎ ঝড়ে আমাদের বসতঘর ভেঙে যায়।

কেওড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. উজ্জ্বল খান সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের কেওড়া ইউনিয়নের ৫ গ্রামের ওপর দিয়ে টর্নেডো বয়ে গেছে। এতে শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। এ ছাড়াও আমাদের পাশের তারপাশা গ্রামেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজী আকতার বলেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর সঙ্গে কথা বলে ক্ষয়ক্ষতি নির্ণয়ের কাজ চলছে।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে দ্রুত সরকারিভাবে সহযোগিতা করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com