মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
সম্পাদক পরিষদের কর্মকান্ডে আমি মোহিত-জেলা প্রশাসক খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়ছে যোগ্যতা দিয়ে নারীদের অধিকার আদায় করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কলাপাড়ায় ডোবা থেকে উদ্ধার করা হলো যুবকের লাশ ভাণ্ডারিয়ায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত ঝালকাঠিতে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে নানান কর্মসূচি বর্নাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে গৌরনদীতে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত গৌরনদীতে সরকারি হাসপাতালের ঔষধ পাচার ও ১০ সাংবাদিককে আটকে রাখার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন ॥ থানায় জিডি আন্তর্জাতিক নারী দিবসে প্রথম আলো বন্ধুসভার পক্ষ থেকে রত্নগর্ভা মায়েদের সম্মাননা প্রদান বোরহানউদ্দিনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন
আমতলীতে লোহার সেতু ভেঙে ইটবোঝাই ট্রলি নদীতে

আমতলীতে লোহার সেতু ভেঙে ইটবোঝাই ট্রলি নদীতে

আমতলী প্রতিনিধি ॥ বরগুনার আমতলী উপজেলার কুকুয়া ও গুলিশাখালী ইউনিয়নের আমড়াগাছিয়া বাজারসংলগ্ন নদীতে আয়রণ ফুট ব্রিজ ভেঙে ইটবোঝাই ট্রলি নদীতে পড়ে গিয়েছে। তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্র জানা গেছে, বুধবার সকাল ৯টার দিকে চাওড়া ইউনিয়নের ঘটখালী তালুকদার ব্রিকস থেকে কুকয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো. ফারুক আকন একটি ট্রলিতে করে ইট বোঝাই করে গুলিশাখালী ইউনিয়নের বাজারখালী গ্রামে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে আমড়াগাছিয়া বাজারসংলগ্ন নদীর ওপর নির্মিত আয়রণ ফুট ব্রিজটি পার হওয়ার সময় হঠাৎ ব্রিজটির মাঝ বরাবর ভেঙে ইটসহ ট্রলিটি নদীতে পড়ে যায়। এ দুর্ঘটনায় হতাহতের কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।
গুলিশাখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম বরিশালটাইমসকে বলেন, আজ (বুধবার) সকালে ইটবোঝাই একটি ট্রলি আয়রন ফুট ব্রিজটি পার হওয়ার সময় ব্রিজের মাঝখান দিয়ে ভেঙে নদীতে পড়ে গেছে। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে দুই ইউনিয়নের ২০ গ্রামের মানুষের। আমতলী থানার ওসি মো. শাহআলম হাওলাদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি।
উপজেলা প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন বরিশালটাইমসকে বলেন, এ আয়রন ফুট ব্রিজটি অনেক আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ছিল। নিষেধ করা সত্ত্বেও জনৈক ফারুক গাজী এ ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে ট্রলি দিয়ে ইট টেনে ব্রিজটি ভেঙে ফেলেছে। এখানে একটি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণের জন্য প্রস্তাবনা দেওয়া আছে। সেটা পাস হয়ে আসলে এখানে নতুন ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরা পারভীন বরিশালটাইমসকে বলেন, ব্রিজ ভেঙে যাওয়ার সংবাদ পেয়েছি। নিষেধ অমান্য করে এ ঝুঁকিপূর্ণ আয়রন ব্রিজটি দিয়ে মালামাল টেনে ভেঙে ফেলেছে। আপাতত তারাই এটি মেরামত করে দেবেন। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com