সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
মুলাদী পৌরসভায় বয়িরে প্রলোভন দখেয়িে দরে বছর যাবৎ র্ধষন ! অতপরঃ থানায় অভযিোগ মুলাদীর গাছুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক শাহাজাহান ঘরামীর মৃত্যুতে স্মরন সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত মেহেন্দীগঞ্জে ৩৩ প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ কুয়াকাটা-উজিরপুর-বাকেরগঞ্জ-বেতগী, মেয়র পদে আবারও মনোনয়ন পেলেন চার মেয়র ঝালকাঠি-পিরোজপুরসহ ১৩ হাসপাতালে বসছে অক্সিজেন প্লান্ট কীর্তনখোলার তলদেশে পলিব্যাগ আর পলিথিনের আস্তরণ; বরিশাল নৌ বন্দরের নব্যতা উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করছে এসএসসিতে ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হবে না: চরমোনাই পীর এমন কর্মময় জীবন অনুকরণীয়: তোফায়েল আহমেদ বরিশালে আয়করদাতাদের উপচে পড়া ভিড়! পরিস্তিতি সামাল দিতে পারছেনা আয়কর বিভাগ পটুয়াখালীতে দোকানের পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে হামলার স্বীকার স্বামী স্ত্রী সহ আহত-৩
ঝালকাঠিতে ৫টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের নামে বেনামে সরকারি অর্থ আত্মসাত

ঝালকাঠিতে ৫টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের নামে বেনামে সরকারি অর্থ আত্মসাত

গাজী মো.গিয়াস উদ্দিন,ঝালকাঠি ॥ ঝালকাঠিতে সাংস্কৃতিক  কর্মকান্ড কে বেগবান করতে এবং সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চায় ৩০টি সংগঠনে অনুদানের জন্য ৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়। কিন্তু কার্যক্রমহীন, কাগজ কলমে নাম সর্বস্ব এমন অনেক সংগঠনের পক্ষ থেকে অনুদান বরাদ্দ পেয়েছে অসংখ্য সংগঠন ও ব্যক্তি। এর মধ্যে দুলাল দাস নামের এক ব্যক্তিই কাগজ কলমে পাঁচটি সংগঠনের ভূয়া নাম দিয়ে সরকারি অনুদানের টাকা আত্মসাতের চেস্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে জেলার সাংস্কৃতিক অঙ্গনে তৈরি হয়েছে ক্ষোভ। তবে অভিযোগ পেয়ে চেক বিতরন বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসক।

দক্ষিনের জনপথ খ্যাত দিতীয় কলকাতা ঝালকাঠিতে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড বেগবান ও সুস্থ সাংস্কৃতিক চর্চার লক্ষ্যে সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয় ঝালকাঠির ৩০টি সাংস্কৃতিক সংগঠনকে ৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকা অনুদান বরাদ্দ করলেও সেই বরাদ্ধ নিয়ে হরিলুটের অভিযোগ উঠেছে। সারা বছর সাংস্কৃতিক চর্চা বা কার্যক্রমে কোন ভূমিকা না থাকলেও কিছু প্যাড ও সাইনবোর্ড সর্বস্ব ভূইফোর সংগঠনকে অনুদান প্রাপ্তদের তালিকায় দেখে জনমনে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন যাচাই না করে শুধুমাত্র আবেদনের মাধ্যমে অনুদান প্রদান করায় ‘স্থানীয় সুযোগ সন্ধানী কতিপয় ব্যক্তি’ বরাদ্দের তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এরমধ্যে দুলাল দাস নামের এক সাংস্কৃতিক সংগঠক একাই ৫টি সংগঠনের নামে আবেদন করে প্রায় ১লাখ ১০হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার পায়তারা চালাচ্ছেন। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে “ধানসিঁড়ি অপেরা পাটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি স্বপন কুমার দাস, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটসহ কয়েকটি সংগঠন লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগে বিভিন্ন সংগঠনের নামে তার আত্মসাতকৃত সরকারি অনুদানের অর্থ উদ্ধার ও জালজালিয়াতীর মাধ্যমে সরকারি অর্থ হাতিয়ে নেয়ায় তার বিরুদ্ধে ফৌজদারী আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত দুলাল দাস বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগের কথা শুনেছি। আমার প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য কিছু ুলোক মিথ্যাচার করছে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোঃ জোহর আলী জানিয়েছেন, ৫টি সংগঠনের নামে একজন অনুদানের আবেদন করা বিষয় একটি অভিযোগ আমি পেয়েছি। এর প্রেক্ষিতে সেই সংগঠনগুলোর বরাদ্দকৃত অনুদান স্থগিত রাখা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com