শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

উপ-সম্পাদক :: দিদার সরদার
প্রধান সম্পাদক :: সমীর কুমার চাকলাদার
প্রকাশক ও সম্পাদক :: কাজী মোঃ জাহাঙ্গীর
যুগ্ম সম্পাদক :: মাসুদ রানা
সহ-সম্পাদক :: এস.এম জুলফিকার
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক :: মামুন তালুকদার
নির্বাহী সম্পাদক :: সাইফুল ইসলাম
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক :: আবুল কালাম আজাদ
সংবাদ শিরোনাম :
চরফ্যাশনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতন

চরফ্যাশনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতন

চরফ্যাশন প্রতিনিধি ॥ চরফ্যাশনে ১০লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে মারুফা আক্তার আঁখি (২০) নামের এক অন্তস্বত্তা গৃহবধুকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে পুলিশ কনস্টেবল স্বামীর বিরুদ্ধে। নির্যাতনের পর জোরপুর্বক ঔষাধ খাইয়ে গর্ভের ৩ মাসের ভ্রুন নস্ট করার অভিযোগও রয়েছে। গত শুক্রবার ওমরপুর ই্উনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে গৃহবধুর স্বামীর বসত ঘরে আটকে রেখে এই নির্যাতন ও হত্যার চেস্টার ঘটনা ঘটে। চরফ্যাশন থানা পুলিশের সহায়তায় ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করে রাত ১২টায় চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে গৃহবধুর পরিবার সুত্রে জানাগেছে। নির্যাতনের পর ওই গৃহবধুকে জোরপুর্বক ঔষাধ খাইয়ে গর্ভের ভ্রুন নস্ট করা হয়েছে বলে চরফ্যাসন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধু জানান। যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী নির্যাতনকারী স্বামী মো, শামিম বরিশাল বাখরগঞ্জ থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্য। চরফ্যাশনের ওমরপুর ই্উনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে আবুল কালামের ছেলে।
সোমবার দুপুরে চরফ্যাশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধু অভিযোগ করেন, ২০১৯সনে শামিমের সাথে তার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের ৬ মাস পর থেকে স্বামী পুলিশ সদস্য শামিম তার বাড়ির বসত ঘর নির্মান করার জন্য গৃহবধুর পরিবারের কাছে ১০লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে আসছিলেন। গত শুক্রবার ফের তার দাবীকৃত ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করেন। এনিয়ে তার সাথে কথার তর্ক হয়। গৃহবধু স্বামীর দাবীকৃত যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করলে স্বামী শামিম ও শ্বশুড় আবুল কালম, শাশুড়ী মাছুমা, ননদ সুমি তাকে এলোপাথারী মারধর করে গুরুতর আহত করেন। মারধর করে মাটিতে সুইয়ে জবাই করে হত্যার চেষ্টা করেন এতে ব্যার্থ হয়ে তাকে জোরপুর্বক ঔষাধ খাইয়ে দেয়। তাতে তার অতিরিক্ত রক্তক্ষরন শুরু হয়ে তার গর্ভের ৩ মাসের ভ্রন নস্ট হয়ে যায়। প্রতিবেশিরা চরফ্যাশন থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশের সহায়তায় গৃহবধুকে উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় মামলা দায়ের করবেন বলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধু মারুফা জানিয়েছেন।
অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য শামিম জানান, বিষয়টি সঠিক নয়। আমার বিরুদ্ধে অহেতুক অভিযোগ তুলেছেন। সংবাদটি প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ জানান। চরফ্যাশন থানার ওসি মনির হোসেন মিয়া জানান,খবর পেয়ে ওই গৃহবধুকে পুলিশ উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন। তিনি চরফ্যাসন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এঘটনায় এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Dokhinerkhobor.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com